নতুন বছর যাক আত্ম জিজ্ঞাসা আর আত্মসমালোচনার

0
3

:: সৈয়দ শামীম আহসান মারুফ ::

আসা-যাওয়ার বিরামহীন স্রোতেই চলমান জীবন। সেকেন্ড-মিনিট-ঘণ্টা-দিন-মাস পেরিয়ে বছর চলে যায়। আসে নতুন বছর। জাগতিক এ নিয়মের ব্যত্যয় ঘটাবে এমন সাধ্য কার? ব্যর্থ প্রাণের আবর্জনা পুড়িয়ে নতুন আলোয় উদ্ভাসিত হওয়ার বারতা নিয়ে যে নতুন বছরটির আগমন ঘটেছে, অমিত সম্ভাবনার আশায় নতুন বছরকে বরণ করছি গভীর আবেগে, পরম মমতায়। বিগত বছরের যাপিত জীবনের তাবত্ সুখ-দুঃখ, আনন্দ-বেদনা, পাওয়া না পাওয়াকে বিদায় জানিয়ে আবার আশার মিনারে দাঁড়াবো আজ থেকে।

নানা কারণেই স্মরণীয় হয়ে থাকবে বিদায়ী বছরটি। বিগত দিনে পাওয়া না পাওয়ার যত আনন্দ-বেদনা, যত জঞ্জাল, যত গ্লানি—সব পেছনে ফেলে এবার শুরু হলো নতুন করে এগিয়ে যাওয়ার পালা। অতীত থেকে শিক্ষা নিয়ে বর্তমানকে পাথেয় করে ভবিষ্যতের সোনালি রোদ্দুর দেখার স্বপ্ন বাস্তবে রূপ পাক সকলের জীবনে। আজ থেকে উদ্ভাসিত হোক সজীব সবুজ নতুনতর সেই দিনের, যা মুছে দেবে সকল গ্লানি। জাগাবে নতুন প্রত্যয়ে সম্ভাবনার পথে এগিয়ে যাবার প্রেরণা। কী হারিয়েছি, প্রত্যাশার কতোটা পূরণ হয়নি, তা নয় বরং যা পেয়েছি সেটিই হোক প্রেরণার উত্স।

আমাদের জানতে হবে মৃত্যুপুরীর ধ্বংসস্তূপেও প্রস্ফুটিত হয় নব-জীবনের ফুল। মহাপ্রলয়ের কাছেও হার মানে না বাঙালি। সকল বৈরিতাকে পায়ে দলে গেয়ে যায় জীবনের জয়গান। স্বপ্ন দেখবো মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় সুখী-সমৃদ্ধ অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ গড়ার। আরও স্বপ্ন দেখি বাংলায় ফিজিওথেরাপি এক মহান ও অতি আকাঙ্ক্ষিত পেশা হিসেবে স্থান পাওয়ার ।

নতুন বছর হোক আত্ম জিজ্ঞাসা আর আত্মসমালোচনার বছর। আমাদের ভাবতে হবে, ফিজিওথেরাপি পেশাটি প্রতিষ্ঠার ৫৪ বছর পরও কি আমাদের এ ক্রান্তি লগ্নে বাস করার কথা ছিল? কিন্তু ভুলে গেলে চলবে না—নিজেদের মতপার্থক্য ও অমিল যদি পরিবর্তন ঘটানোর মতো মানবিক উদার মূল্যবোধ গড়ে তুলতে না পারি, তবে পুরনো ক্যালেন্ডারের স্থানে হয়তো আজ থেকে নতুন ক্যালেন্ডার শোভা পাবে, কিন্তু ইতিবাচক কোনো পরিবর্তন আসবে না। নতুন বছর অর্থবহ হয়ে উঠবে তখনই যদি বিগত বছরের অভিজ্ঞতা থেকে শিক্ষা নিয়ে অপূর্ণতাগুলো পূর্ণ করার প্রয়াস নেওয়া যায়।

 নতুন বছরে উন্মোচিত হোক সম্ভাবনার দিগন্ত। এই প্রত্যাশায় সবার জন্য শুভ কামনা।

লেখক : সম্পাদক ও প্রকাশক,physionews24.com