ফিজিওথেরাপি সেবায় বিশেষ অবদানের জন্য সম্মাননা পেলেন “ডা. জি এম শামিম (পিটি)”

0
19

ইমন চৌধুরী :

গত শনিবার (১৫ জুলাই) ঢাকার সেগুনবাগিচায় অনুষ্ঠিত হলো “বর্তমান সরকারের আমলে নারী সমাজের উন্নয়ন ও অগ্রগতি” শীর্ষক আলোচনা সভা, ও মাদার তেরেসা শাইনিং পার্সোনালিটি এ্যাওয়ার্ড-২০১৭।

সংগঠনের জুরি বোর্ডের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ফিজিওথেরাপি সেবায় বিশেষ অবদানের স্বীকৃতি স্বরূপ রিসার্চ ফিজিওথেরাপি এ্যান্ড রিহ্যাবিলিটেশন সেন্টার এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক “ডা. জি এম শামিম (পিটি)” কে “মাদার তেরেসা শাইনিং পার্সোনালিটি এ্যাওয়ার্ড-২০১৭” প্রদান করা হয় ।

উক্ত অনুষ্ঠানের আয়োজন করে “আলোকিত বাংলার মুখ ফাউন্ডেশন” নামক একটি স্বেচ্ছাসেবী প্রতিষ্ঠান। উল্লেখ্য যে, ১৯৭১ সালের পর থেকে বিভিন্ন চড়াই উৎরাই এর মধ্য দিয়ে বাংলাদেশ এয ভাবে এগিয়ে গিয়েছে, যাদের কল্যাণে, সুচিন্তণ, একাগ্রতা, দৃঢ় প্রত্যয় নিয়ে নিষ্ঠার সাথে দেশকে ভালবেসে উন্নয়ন ও অগ্রগতির দিকে নিয়ে এসেছেন, তাদেরকে তুলে ধরাই এ প্রতিষ্ঠানের মূল লক্ষ। এছাড়া দেশের আর্থ-সামাজিক উন্নয়ন কল্পে সরকার, দেশের প্রতিষ্ঠিত ব্যক্তিবর্গ যে সকল পদক্ষেপ নিয়েছেন এবং বাস্তবায়ন করেছেন, তা তুলে ধরাও প্রতিষ্ঠানের কর্মকাণ্ডের একটি অংশ। তারই ধারাবাহিকতায় ব্যবসায়ী, জনপ্রতিনিধি, নারী উদ্যোক্তা, কর্মকর্তা, শিল্পী সাহিত্যিক, আইনজিবী, সমাজসেবক, সংগঠক ও ডাক্তারকে প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে মাদার তেরেসা স্বর্ণপদক – ২০১৭ ও সনদ প্রদান অনুষ্ঠান।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, মাননীয় পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় প্রতিমন্ত্রী মসিউর রহমান এম.পি। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিচারপতি আবদুস সালাম মামুন, বিশিষ্ট আইনজীবী ও মানবাধিকার ব্যুরোর মহাসচিব ড. মো: শাহজাহান। মূলপ্রবন্ধ উপস্থাপন করেন আলোকিত বাংলার মুখ ফাউন্ডেশনের সিনিয়র সহ-সভাপতি গোবিন্দলাল সরকার। শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন আলোকিত বাংলার মুখ ফাউন্ডেশনের সভাপতি শাহ আলম চুন্নু। অনুষ্ঠানটির সভাপতিত্ব করেন বিচারপতি সৈয়দ আবু কাওসার মো: দবির।