সকল ফিজিওথেরাপীস্টই চিকিৎসক, কিন্তু সকল চিকিৎসক ফিজিওথেরাপিস্ট নয়

0
157

“”সকল ফিজিওথেরাপিস্ট ই চিকিৎসক, সকল চিকিৎসক ফিজিওথেরাপিস্ট নন””
কেননা এম.বি.বি.এস, বি.ডি.এস এর ন্যায় বিপিটি(ব্যাচেলর অব ফিজিওথেরাপি) চিকিৎসা বিজ্ঞানের একটি স্বতন্ত্র শাখা। ৫ বছর মেয়াদি এই কোর্স এ আপনাকে ভর্তি হতে হলে, এইচ.এস.সি তে বাধ্যতামূলক বিজ্ঞান বিভাগ থেকে নুন্যতম ৪.৫০ জিপিএ নিয়ে পাশ করতে হবে এবং অবশ্যই বায়োলজি বিষয় থাকতে হবে। এছাড়াও কিছু কিছু প্রতিষ্ঠানে ডিপ্লোমা ইন মেডিকেল টেকনোলজি (ফিজিওথেরাপি) থেকে ভর্তির সু্যোগ রয়েছে।
একজন ছাত্র-ছাত্রী যখন চিকিৎসা বিজ্ঞানের এই শাখা তে ভর্তি হয় তখন তাকে ফিজিওথেরাপি সম্পর্কিত বিষয় এর সাথে প্রথম প্রফেশনাল পরিক্ষায় এনাটমি, ফিজিওলজি,বায়োকেমিষ্ট্রি, কমিউনিটি মেডিসিন এবং সাইকোলজি । ২য় পেশাগত পরিক্ষায় পড়তে হয় এনাটমি, ফিজিওলজি, প্যাথলজি ও মাইক্রোবায়োলজি, রেডিওলজি এন্ড ইমেজিং, অর্থোপেডিক এন্ড রিউমাটোলজি, পেডিয়াট্রিক । ৩য় পেশাগত পরিক্ষায় প্যাথলজি ও মাইক্রোবায়োলজি, ফার্মাকোলজি, নিউরোলজি, কার্ডিও পালমোনারি, জেনারেল সার্জারি,রিসার্চ মেথডোলজি, অর্থোপেডিক মেডিসিন এর মত বিষয়। এছাড়াও ফাইনাল পেশাগত পরিক্ষায় ফার্মাকোলজি, জেরিয়াট্রিক, সাইকিয়াট্রিক এর মত গুরুত্বপূর্ন বিষয় সহ ফিজিওথেরাপি এর অসংখ্য বিষয় অধ্যায়ন করে একজন ফিজিওথেরাপিস্ট চিকিৎসক হতে হয়।
অপরদিকে এমবি বি এস এবং বিডিএস চিকিৎসক গন শুধু মাত্র তাদের নিজস্ব এড়িয়া নিয়েই অধ্যায়ন করেন। যার ফলশ্রুতিতে তারা শুধু মাত্র তাদের বিষয়ভিত্তিক স্পেশালিষ্ট হয়ে থাকেন। কিন্তু একজন ফিজিও চিকিৎসক ফিজিওথেরাপি এর বিষয় ছাড়াও চিকিৎসা বিজ্ঞানের মূল সকল বিষয় অধ্যায়ন করে থাকেন এবং সেই অনুযায়ী চিকিৎসা প্রদান করে থাকেন। তবে হ্যা এমবিবিএস এবং বিপিটি( ব্যাচেলর অব ফিজিওথেরাপী সাংঘর্ষিক কোনো পেশা নয়। দুটি ভিন্ন সতন্ত্র পেশা। এমবিবিএস ডাক্তারের কাজ ফিজিওথেরাপীস্ট করে না, তেমনি ফিজিওথেরাপীস্টদের কাজও এমবিবিএস ডাক্তারদের করা উচিত নয়।
তাই আমরা নিঃসন্দেহ বলতে পারি, সকল “ফিজিওথেরাপিস্ট ই চিকিৎসক, সকল চিকিৎসক ফিজিওথেরাপিস্ট নয়”

ডাঃ মোঃ নেছার উদ্দিন (সাকের)পিটি
প্রতিষ্ঠাতা,ফিজিওজোন ফিজিওথেরাপি সেন্টার। ও
কনসালটেন্ট ফিজিওথেরাপিস্ট,
কেসি হাসপাতাল এন্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টার।
www.physiozonebd.com