সঠিক পরিকল্পনা বদলে দিতে পারে ফিজিওথেরাপি চিকিৎসার ভবিষ্যত

0
37

অনেক প্রতিবন্ধকতার পরও দেশে ফিজিওথেরাপি চিকিৎসার ভবিষ্যত উজ্জ্বল বলে মনে করেন এখাত সংশ্লিষ্টরা। তাদের মতে, সরকারের একটি সঠিক পরিকল্পনা ফিজিওথেরাপি চিকিৎসা ও চিকিৎসকদের ভাগ্য বদলে দিতে পারে। পাশাপাশি ফিজিওথেরাপি কাউন্সিল গঠন, শিক্ষিত ফিজিওথেরাপিস্টদের পদবির মান, উচ্চ শিক্ষা, বেতন কাঠামোসহ সব ধরণের সুযোগ-সুবিধা নিশ্চিত করা অত্যন্ত জরুরি বলে মনে করেন বিশেষজ্ঞরা।

আমেরিকায় সম্প্রতি গ্রাজুয়েট ফিজিওথেরাপিস্টদের ডাক্তার বা চিকিৎসকের মর্যাদা দিয়েছে। এ জন্য আমেরিকান ফিজিওথেরাপি এসোসিয়েশন, ভিশন-২০২০ নামে একটি প্রকল্প চালু করেছে। যদিও এর আগেই ভারত ও বাংলাদেশের ফিজিওথেরাপি এসোসিয়েশন আইনি লড়াই করে ফিজিওথেরাপিস্টদের নামের আগে ডা. লেখার অনুমতি পেয়েছে। নানা সংকট-সমস্যা কাটিয়ে ফিজিওথেরাপিস্টরা উন্নত প্রযুক্তির ব্যবহার ও আধুনিক চিকিৎসা পদ্ধতির প্রয়োগ করছেন। তাদের দাবি বিশ্ব মানের ফিজিওথেরাপি চিকিৎসা দেয়া দেশে অসম্ভব নয়।

অনেক সম্ভাবনার পরও দেশে অবিষ্যতের ফিজিওথেরাপি চিকিৎসার সামনে রয়েছে বড় চ্যালেঞ্জ। বাংলাদেশের একদল চিকিৎসকের নিরন্তর চেষ্টায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চলছে পেলিয়েটিভ কেয়ার ইউনিটের কার্যক্রম। এই ইউনিটের প্রধান ড. নিজাম উদ্দিন আহমেদ জানান, পেলিয়েটিভ কেয়ার ইউনিটের রোগীদের ফিজিওথেরাপি চিকিৎসার কোন বিকল্প নেই।

ফিজিওথেরাপিস্টরা বলছেন, স্বাস্থ্যখাতের বিভিন্ন দিক নিয়ে সরকারের নানামুখী উদ্যোগ ভাবনা থাকলেও, ফিজিওথেরাপি নিয়ে সরকার কিছুই বলছেন না, নেই কোন পরিকল্পণা। গত বছর ঢাকায় এক আন্তর্জাতিক সেমিনারে অটিজম বিশেষজ্ঞ সায়মা হোসেন ওয়াজেদ বলেছিলেন, অন্যান্য চিকিৎসকদের মতোই ফিজিওথেরাপিস্টরা সমান মর্জাদা পাবে, শিগগিরি গঠন করা হবে ফিজিওরেপি কাউন্সিল।

বিশ্বের বিভিন্ন দেশের মতো এ দেশে অসংক্রামক ব্যাধির দ্রুত বিকাশ ঘটছে। এ ধরনের রোগীদের সুস্থ, স্বাভাবিক ও কর্মক্ষম জীবনে ফিরিয়ে আনতে ফিজিওথেরাপি চিকিৎসা জরুরি প্রয়োজন হবে বলে মনে করেন সংশ্লিষ্ট পর্যবেক্ষকরা।