অনুষন্ধানি রির্পোট – ভুলের বিপর্যয়ে ভুগছে ফিজিওথেরাপি শিক্ষার্থীদের মার্ক-সিট

0
10

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চিকিৎসা অনুষদের অধীনস্থ পাঁচটি ফিজিওথেরাপি কলেজে বিএসসি ইন ফিজিওথেরাপি কোর্সটি চলছে ।উক্ত কোর্সটির সকল পেশাগত পরীক্ষা, রেজাল্ট ও মার্ক-সিট ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় করে থাকে এবং এর পূবেই প্রতিটি ফিজিওথেরাপি প্রতিষ্ঠান তাদের স্বস্ব পরীক্ষার খাতা দেখে টেবুলেশন সিট তৈরি করে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে জমা দেন ।কিন্তু বেশিরভাগ সময় রেজাল্টে ভুল পরিলক্ষিত হয় এবং গত মার্চে প্রকাশিত রেজাল্টে ছিল সবচেয়ে ভয়াভয় । এক বা দুই মার্ক গ্রেজ দেওয়ার ব্যবস্থা থাকলেও মাঝে মধ্যে অনেক শিক্ষার্থী দুই বা এক মার্কের কারণে ফেল এর শিকর হয় যা কাম্য নয়। গত মার্চ ২০১৬ এর প্রকাশিত রেজাল্টে একটি প্রতিষ্ঠানে চতুর্থ বর্ষের সকল শিক্ষার্থীর মার্ক সিট ভুল আসে।আবার অন্য এক প্রতিষ্ঠানের এক শিক্ষার্থীর রেজাল্টে তিনটি বিষয়ে অকৃতকার্য হলেও মার্ক সিট চারটি বিষয়ে অকৃতকার্য আসে।
এই পরিস্থিতি সম্বন্ধে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষক নিয়ন্ত্রক বাহারুল হক চৌধুরী এর সাথে ফিজিওনিউজ২৪.কম যোগাযোগ করলে তিনি জানান এরকম হতে পার তবে এই বছর প্রথম কম্পিউটারে মার্ক-সিট হওয়াতে ভুলের পরিমাণ একটু বেশি । তিনি আরো বলেন স্বস্ব কলেজের শিক্ষকদের এ ব্যাপারে আরো একটু সতর্ক হতে হবে, কারণ তারাই পারে এই আনাকঙ্খিত ঘটনা ঠেকাতে । যেহেতু ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে যে রেজাল্ট তৈরি করে তা স্বস্ব কলেজের শিক্ষকদের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী ও তাদের পর্যবেক্ষণে মাধ্যমে। তাই মার্ক সিটের এমন ভুলের ব্যাপারে কিছুটা হলেও ভুলে আক্রান্ত কলেজের শিক্ষকদের উদাসীন আচরণ রয়েছে বলে তিনি মনে করেন এবং বিষয়টিতে তিনি পরবতীতে নজরে রাখবেন যাতে পুনরাবৃত্তি না হয়।
অন্যদিকে ভুল মার্ক-সিট স্বস্ব প্রতিষ্ঠান ঠিক না করে শিক্ষার্থী নিজের দিয়িত্বে ঠিক করতে পাঠান হয় যা পরীক্ষা নিকটবর্তী শিক্ষার্থীদের ইহা খুবই বেদনাদায়ক । এ বিষয়ে এক প্রতিষ্ঠানের কোর্স প্রধানকে যানতে চাইলে তিনি বলেন এ বিষয়টি প্রশাসনিক ভাবে ঠিক করতে গেলে অনেক সময় স্বপক্ষ তাই শিক্ষার্থীকে পাঠান হয় যাতে দ্রুত হয় ।
যেহেতু সম্পুন বিষয়টি শিক্ষার্থীদের অতি গুরুত্বপূর্ণ একটি সমস্যা তাই, যথাযথ কর্তৃপক্ষ সঠিক ব্যবস্থা নেওয়ার মাধ্যমেই এই সকল সমস্যার পরিত্রান সম্ভব ।