এক চৈতি বিকেলের শেষে



  • Add Comments
  • Print
  • Add to Favorites

 সুদীপ তন্তুবায় নীল

মহুয়ার বিবর্ণ পাতাটির নীচে কুহু ডাক দিয়ে উড়ে গেল….

.. নীল জলরাশি বেয়ে নেশাখোর তরী।

ভেসে গেছে প্রাত্যাহিক নিয়মে, পশ্চিম খেয়াঘাটে ।

সেই যে রক্তজবার পাপড়ী মেলা

ভোরে উড়ে গেছে ফিরেছে কি তারা ?

শালিক বনপায়রার দল ?

দেখি ফেরে সব নীড়ে একে একে বসন্ত বাতাসের অনুকূলে ।

বাউরী পাড়ার ছেলেটা লাটাই গুটিয়ে নিয়েছে

: ঘুড়ি পড়ে আছে অন্ধকার ঘরের কোনে,

তাঁতী মেয়েটাও ফিরে গেছে জল নিয়ে ।

দিবা সন্ধ্যার সন্ধিক্ষণে কেউ ফিরে আসে মেঠো পথ বেয়ে ।

হঠাৎ খোঁয়ারে তাঁতের কান্না ! ভুখা শিশুটাও কাঁদে ।

চৈতি বিকেলের শেষে প্রশ্ন জেগে রয় চিন্তন অরন্যে :

“কি তফাৎ দুই ক্রন্দনে ?”

No Comments to “এক চৈতি বিকেলের শেষে”

Comments are closed.