জোড়া কলা খেলে কি জোড়া শিশু জন্মায়



  • Add Comments
  • Print
  • Add to Favorites

মুবদিউল মুহিত  : জোড়া কলা খেলে কি জোড়া লাগানো শিশু জন্মায় ? চন্দ্র গ্রহনের সময় গর্ভবতী মা মাছ কাটলে কি সেই গর্ভজাত শিশুর ঠোট কাটা হয়? কিংবা চন্দ্র গ্রহনে মা পা ভাজ করে বসলে কি সেই গর্ভজাত শিশুরও পা বাকা হয়ে জন্মায়? সন্ধার সময় খোলা চুলে গর্ভবতী মা তেতুল গাছের নিচে গিয়ে অশুভ বাতাস  লেগে সেই শিশুটিও কি প্রতিবন্ধী হয়ে জন্মায় ? গর্ভবতী মাকে কম খাবার দেয়া উচিত কেননা কম খাবার খেলে পেটে অনেক জায়গা খালি থাকে, এতে বাচ্চা সহজে বেড়ে উঠার জন্য সহায়ক হয় ? গর্ভবতী মাকে হার খাটুনি খাটানো ভাল এতে শিশুর সাস্থ্ ভাল হয় ? শিশু জন্মের সময়ে কাদা ভাল এই জন্য যে চিৎকার করে কাদলে শিশুর কন্ঠ পরিস্কার হয় । একজন প্রতিবন্ধী ব্যাক্তির সন্তানও কি প্রতিবন্ধিই হয়

এমন অনেক অজানা সঙ্কা ও বিশ্বাস মিশে রয়েছে আমাদের সমাজে ।। যুগ যুগ ধরে এই ধারনা কে লালন করেই এগিয়ে চলে সময় ।। শুধু গ্রামে গন্জেই নয় শহুরে শিক্ষিত সমাজেও এই ধরনের কু সংস্কার বাসা বেধেছে পাকাপোক্ত ভাবে ।। আর তাই তাইতো শিশু জমজ হওয়ার কারন জানার পরও আমরা বাজার থকে জমজ কলাটা কিনতে চাইনা তুলনামুলক সস্তায় দেবার পরেও ।। তাই যতক্ষন পর্যন্ত আমরা এসবের প্রকৃত কারন না জানবো বা বিশ্বাস না করবো ততক্ষন আমরা প্রতিবন্ধিতা প্রতিরোধও করতে পারবননা । মূলত গর্ভাবস্থায় – করা ঔষধ সেবন, অপুস্টি, দুর্ঘটনা, অতিমাত্রায় জর, রুবেলা, আয়োডিনের অভাব ও সন্তান প্রসবের সময় নানান জটিলতার কারনেই শিশু প্রতিবন্ধী হয়ে জন্মায় । এতে মা কিংবা অন্য কাউকে দোষারোপ না করে সমাজের প্রত্যেকটি স্তরেই সচেতনতা বৃদ্ধি করা অত্যন্ত জরুরি । তবেই সম্ভব হবে প্রতিবন্ধিতা প্রতিরোধ ।।

No Comments to “জোড়া কলা খেলে কি জোড়া শিশু জন্মায়”

Comments are closed.