ফিজিওথেরাপিস্টরা নামের আগে অবশ্যই ডা লিখবে!



  • Add Comments
  • Print
  • Add to Favorites

চিকিৎসকের নামের আগে ডা (Dr) লিখার রীতি সম্পূর্ণভাবে ঐতিহ্যগত। পি,এইস,ডি (PhD) আর এমডি (M.D) ডিগ্রিধারীই মূলত নামের আগে Dr লিখার অধিকার বহন করে। এই উপমহাদেশের বাহিরে তাকালেই আপনি দেখবেন, চিকিৎসকরা নামের আগে ডা লিখে না। এই রীতি শুধু এই উপমহাদেশ আর মধ্যপ্রাচ্যের কিছু দেশে প্রচলিত।এইদেশের মানুষ ডা বলতে চিকিৎসককে বুঝে। ডা লিখবেন না মানে আপনি চিকিৎসক না!!!! বিএমডিসি এই ঐতিহ্যগত রীতিকে কাজে লাগিয়ে ২০১০ সালে আইন করে নিল, এমবিবিএস আর বিডিএস ছাড়া কেউ আগের ডা লিখতে পারে না। এই হাস্যকর আইন পৃথিবীতে আর কোথাও হয়ছে কিনা, আমি জানি না। অথচ বিএসপিটি (বিএসসি ইন ফিজিওথেরাপি) কোর্সটিও এমবিবিএস আর বিডিএস এর মত বিশ্ববিদ্যালয়ের চিকিৎসা অনুষদের অধীনে পরিচালিত সমমানের গ্রাজুয়েশন কোর্স । তিনটা কোর্সই ক্লিনিক্যাল হেলথ নিয়ে । তিনজনই রোগীকে এসেস করে, রোগ নির্নয় করে, চিকিৎসা করে। এমবিবিএস আর বিডিএস চিকিৎসা করে মেডিসিন আর সার্জারির মাধ্যমে, ফিজিওথেরাপিস্ট চিকিৎসা করে ফিজিক্যাল মেথডের মাধ্যমে। তাহলে কেন একজন নামের আগে ডা লিখবে, আরেকজন ডা লিখবে না? না লিখলে কেউ লিখবে না। লিখলে সমান যোগ্যতার সবাই লিখবে। ফিজিওথেরাপিস্টদের নামের আগে ডা লিখতে আইনত কোন বাধা নেই। বিএমডিসির এই আইন গ্রাজুয়েট ফিজিওদের জন্য হাইকোর্টের অর্ডারে স্থগিত আছে। বিপিএ ছাড়া বিএমডিসি অথবা বিএমএ কেউই এখন ফিজিওথেরাপিস্টকে নিয়ন্ত্রন করার ক্ষমতা রাখে না। ফিজিওথেরাপিস্টরা নামের আগে ডা লিখে, শেষে পিটি (P.T.) লিখে। স্পষ্ট বুঝা যায় তারা ফিজিওথেরাপিস্ট। এখানে সন্দেহের কোন কারন নেই। ইন্ডিয়ার ফিজিওরা সবাই এই রীতি মানতেছে। আমাদের হেলথকে শক্তিশালী করার জন্য সবাইকে এই রীতি মানা উচিত। কে ডা লিখল, কে লিখল না, সেটা বড় কথা নয়, কথা হল একজনের প্র্যাকটিস আরেকজন না করলেই হয়। তাহলেই মানুষ সুচিকিৎসা পাবে। সবাই উপকৃত হবে।

ডা সাইফুল ইসলাম, পিটি

[মতামত বিভাগের লেখা  সম্পূর্ণভাবেই লেখকের নিজেস্য মন্তব্য । ]




No Comments to “ফিজিওথেরাপিস্টরা নামের আগে অবশ্যই ডা লিখবে!”

Comments are closed.