ফ্যাট ঝরিয়ে ফেলার পর কোথায় যায় ?



  • Add Comments
  • Print
  • Add to Favorites

ডায়েটিং সম্পর্কে অনেক কথাই তো শুনেছেন। মেদ ঝরানোর জন্য প্রচুর কসরত্ও করেছেন। কিন্তু কখনও ভেবে দেখেছেন কি ঝরিয়ে ফেলার পর কোথায় যায় ফ্যাট? কেউ বলেন ফ্যাট এনার্জিতে রূপান্তরিত হয়, তো কেউ বলেন ফ্যাট পেশীতে পরিণত হয়। আবার কেউ হয়তো শুনেছেন এক বার যদি অ্যাডিপপোজ বা ফ্যাট কোষ শরীরে জমে, তাহলে কখনই তা শরীর থেকে ছেঁটে ফেলা সম্ভব না।

ইউনিভার্সিটি অব নিউ সাউথ ওয়েলস-এর গবেষক অ্যান্ড্রু ব্রাউন জানাচ্ছেন, যখন আমরা ওজন কমিয়ে ফেলি তখন শরীরের ফ্যাট কোষ নিশ্বাসের মতো শরীরের বাইরে বেরিয়ে যায়। ব্রিটিশ মেডিসিন জার্নালে প্রকাশিত হয়েছে এই রিপোর্ট। একই কথা বলেছেন অস্ট্রেলিয়ার টেলিভিশন ব্যক্তিত্ব রুবেন মিরম্যান। তাঁর মতে, ওজন কমানো নিয়ে আমাদের মধ্যে অনেক ভুল ধারণা প্রচলিত রয়েছে। যখন আমরা মেদ ঝরিয়ে ফেলি তখন তা কার্বন-ডাই-অক্সাইড রূপে শরীর থেকে বেরিয়ে যায়। অতিরিক্ত কার্বোহাইড্রেট ও প্রোটিন শরীরে ট্রাইগ্লিসারাইডে (যার মধ্য থাকে কার্বন, অক্সিজেন ও হাইড্রোজেন) পরিণত হয়। এবং ফ্যাট কোষের লিপিড ড্রপলেটে জমা হয়। ওজন কমানোর অর্থ ট্রাইগ্লিসারাইড মেটাবলিজম। যার ফলে ফ্যাট কোষে জমে থাকা কার্বন শরীরের বাইরে বেরিয়ে যায়।

১০ কেজি ফ্যাট ঝরিয়ে ফেলা মানে প্রশ্বাসের সঙ্গে ২৯ কেজি অক্সিজেন শরীরে পৌঁছনো, তারপর ২৮ কেজি কার্বন-ডাই-অক্সাইড ও ১১ কেজি জল উত্পন্ন করা। ১০ কেজি ফ্যাটের আনবিক গঠন পরীক্ষা করে অ্যান্ড্রু দেখেছেন এর মধ্যে ৮.৪ কেজি শরীর থেকে কার্বন-ডাই-অক্সাইড আকারে নির্গত হয়। অর্থাত্, আমাদের ফুসফুসই মেদ ঝরানোর প্রধান অঙ্গ। বাকি ১.৬ কেজি জলে পরিণত হয়ে ঘাম, মল, চোখের জল ও অন্যান্য বডি ফ্লুইডের আকারে শরীর থেকে বেরিয়ে যায়।

No Comments to “ফ্যাট ঝরিয়ে ফেলার পর কোথায় যায় ?”

Comments are closed.