মানুষের বয়স বাড়ার সাথে সাথে ক্যান্সারে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকিও বেড়ে যায়

0
16

 

বাংলাদেশ ক্যান্সার সোসাইটির মহাসচিব অধ্যাপক ডা. শেখ গোলাম মোস্তাফা বলেছেন, “মানুষের বয়স বাড়ার সাথে সাথে ক্যান্সারে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকিও বেড়ে যায়।বর্তমানে বাংলাদেশের মানুষের গড় আয়ু বেড়ে গেছে। যে কারণে ক্যান্সার আক্রান্ত রোগীর সংখ্যাও বেড়েছে।”

৩১মার্চ,মঙ্গলবার রাজধানীর জাতীয় প্রেসক্লাবের ভিআইপি লাউঞ্জে ‘ক্যান্সার নির্ণয় ও চিকিৎসা: সুযোগ ও ব্যয়’ শীর্ষক গোলটেবিল আলোচনা সভায় তিনি এ কথা জানান।সেন্টার ফর ক্যান্সার প্রিভেনশন অ্যান্ড রিসার্চ, পাবলিক হেলথ ফাউন্ডেশন অব বাংলাদেশ ও ইএইচআরডি ক্যান্সার সাপোর্টের যৌথ আয়োজনে এ আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

ডা. গোলাম মোস্তাফা বলেন, “প্রধানত দুটি কারণে আমাদের ক্যান্সার হয়। এক হচ্ছে জিনগত কারণে, দ্বিতীয় হচ্ছে, পরিবেশগত কারণে। জিনের পরিবর্তনের ফলে যে ক্যান্সার হয়, তাতে আমাদের কিছু করার থাকে না। কিন্তু পরিবেশ দূষণ, খাদ্যে ভেজাল ইত্যাদির কারণে যে ক্যান্সার হয়, সচেতনতার মাধ্যমে তা প্রতিরোধ করতে পারি।”

সভায় মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন জাতীয় ক্যানসার গবেষণা ইনস্টিটিউট ও হাসপাতালের সহযোগী অধ্যাপক মো. হাবিবুল্লাহ তালুকদার রাসকিন। প্রবন্ধে বলা হয়, “কয়েক বছর আগেও দরিদ্র রোগীরা স্তন ক্যানসারসহ মেজর অপারেশন ১৫-২৫ হাজার টাকায় করাতে পারতেন। বর্তমানে যার জন্য ব্যয় হয় প্রায় এক লাখ টাকা।”11021526

এ বিষয়ে মো. হাবিবুল্লাহ তালুকদারবলেন, “চিকিৎসাসেবার বাণিজ্যিকীকরণ, দেশের স্বল্পসংখ্যক ক্যানসার সার্জনদের ইচ্ছামতো রেট ও বেসরকারি হাসপাতাল-ক্লিনিকের ওপর সরকারের কোনো নিয়ন্ত্রণ না থাকায় এমন অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে।”

প্রবন্ধে ক্যানসার নিয়ন্ত্রণে ও ক্যানসার সম্পর্কে সচেতনতা সৃষ্টির উদ্দেশ্যে কয়েকটি প্রস্তাব দেওয়া হয়। তার মধ্যে রয়েছে-দেশে স্তন, জরায়ু মুখ ও মুখ গহŸরের ক্যানসার নির্ণয়ের জন্য জনগোষ্ঠীভিত্তিক স্ক্রিনিং কর্মসূচি বাস্তবায়ন, সরকারি ক্যানসার চিকিৎসাকেন্দ্রের ৮০ শতাংশ বিছানা গরিব রোগীদের জন্য বিনা মূল্যে করা, জাতীয় ক্যানসার গবেষণা ইনস্টিটিউট ও হাসপাতালের শয্যা সংখ্যা পাঁচ শতে উন্নীত করা।

আলোচনা সভায় বক্তারা বলেন, বিভাগীয় শহরগুলোতে আঞ্চলিক ক্যানসার কেন্দ্র স্থাপিত হলে ক্যানসার চিকিৎসা প্রত্যন্ত অঞ্চলের রোগীদের নাগালের মধ্যে আসবে। ক্যানসার চিকিৎসা–ব্যয় কমাতে সরকার, বেসরকারি হাসপাতাল ও সংশ্লিষ্ট চিকিৎসকদের মানসিকতায় পরিবর্তন আনতে হবে। ক্যানসার চিকিৎসা ব্যয় দরিদ্রদের নাগালের বাইরে, তাই সরকারি খাতে ক্যানসার চিকিৎসার সুবিধা বৃদ্ধি করতে হবে।11074623

বাংলাদেশে ক্রমবর্ধমান ক্যান্সার রোগীদের সংখ্যার তুলনায় ক্যান্সার রোগীর চিকিৎসা সুবিধা এখনও অপ্রতুল। ক্যান্সার রোগীর প্রকৃত সংখ্যা নিরূপনের জন্য প্রয়োজনীয় পপুলেশন বেজ্ড ক্যান্সার রেজিস্ট্রির অভাবে আন্তর্জাতিক বিভিন্ন সংস্থার দেয়া পরিসংখ্যানের উপর নির্ভর করতে হয়, যা অনেকাংশেই সঠিক পরিস্থিতি প্রতিফলিত করেনা বলে ধারণা।