রমজানে ব্যথামুক্ত থাকতে সঠিক ফিজিওথেরাপি



  • Add Comments
  • Print
  • Add to Favorites

দীর্ঘদিন ধরে বিভিন্ন ধরনের ব্যথা-বেদনায় ভুগছেন? নানারকম ব্যাথা রয়েছে, ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থা এড়াতে ব্যথার রকমফের জেনে নেয়া ভালো। এ বিষয়ে জানাচ্ছেন ঢাকা সিটি ফিজিওথেরাপি হাসপাতালের চেয়ারম্যান ও চিফ কনসালট্যান্ট ডা. এম. ইয়াছিন আলী

ব্যাথা হরেক রকম। যেমন: ঘাড়ে ব্যথা, কাঁধে ব্যথা, কোমরে ব্যথা, হাঁটুতে ব্যথা ইত্যাদি। এই ব্যাথা অনেকগুলো কারণে হতে পারে তবে বিশেষ করে হাড়ের ক্ষয়জনিত বা বয়সজনিত কারণে অর্থাৎ, চিকিৎসাবিজ্ঞানের ভাষায় থাকে ডিজেনারেটিভ ডিজিজ বা বয়সজনিত রোগ বলা হয়। এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলো, সারভাইক্যাল স্পনডাইলোসিস, লাম্বার স্পনডাইলোসিস, অথিস্টওআর্থাইটিস, ফ্রোজেন স্লোঞ্জার, অথিস্টওপোরোসিস ও কিছু ডিজিজ যেমন: পিএলআইডি বা ডিক্স-প্রপেলস ইত্যাদি যার ফলে আক্রান্ত ব্যক্তি দীর্ঘদিন যাবৎ ব্যথানাশক ওষুধ খেয়ে আসছেন, কিন্তু ওষুধ না খেলে ব্যথা সহ্য করতে পারেন তাদের ক্ষেত্রে রমজান মাসের রোজা রাখা কঠিন হয়ে পড়ে বিশেষ করে ব্যথানাশক ওষুধগুলোর তাৎক্ষণিক পার্শ্বপ্রতিক্রিয়াগুলোর মধ্যে এসিডিটি সমস্যাটি বাড়িয়ে দেয়।

তাছাড়া দীর্ঘমেয়াদি কিছু পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া যেমন: লিভার, কিডনিসহ আমাদের শরীরের গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গের ক্ষতিসাধন করে। যার ফলে আক্রান্ত ব্যক্তিদের রমজানের রোজা রাখা কঠিন হয়ে পড়ে। তাই যারা উপরোক্ত বিভিন্ন ধরনের ব্যথাজনিত অসুখে ভুগছেন আর দেরি না করে নিকটস্থ একজন ফিজিওথেরাপি বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের শরণাপন্ন হয়ে সমস্যানুযায়ী পার্শ্বপ্রতিক্রিয়াবিহীন, আধুনিক চিকিৎসাবিজ্ঞানের অন্যতম সংযোজন ফিজিওথেরাপি চিকিৎসা নিন। যার মধ্যে রয়েছে বিভিন্ন ধরনের ম্যানুয়াল বা ম্যানুপুলেশন থেরাপি, ইলেকট্রোথেরাপি, থেরাপিউটিক এক্সারসাইজ যা আপনাকে দেবে পার্শ্বপ্রতিক্রিয়াবিহীন ব্যথামুক্ত জীবন ও বেশি বেশি ইবাদত-বন্দেগি করার উপযোগী।




No Comments to “রমজানে ব্যথামুক্ত থাকতে সঠিক ফিজিওথেরাপি”

Comments are closed.