স্ট্রোকের পর ফিজিওথেরাপি

স্বাস্থ্যকথা

স্ট্রোকের পরপরই ফিজিওথেরাপি শুরু করা জরুরি। কারণ, ফিজিওথেরাপি যত দেরিতে শুরু হবে, রোগীর স্বাভাবিক জীবন ফিরে পাওয়ার বিষয়টি ততই দীর্ঘায়িত হতে পারে।

স্ট্রোকের পর যত দ্রুত সম্ভব ফিজিওথেরাপি শুরু করা উচিত। দুই দিনের মধ্যে তো অবশ্যই। তবে স্ট্রোকের একবারে প্রাথমিক পর্যায়ে ফিজিওথেরাপি কেবল বড় হাসপাতালের অ্যাকিউট কেয়ারে বা বিশেষায়িত হাসপাতালেই সম্ভব। এমনকি রোগী নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) থাকাকালীন অবস্থায়ও ফিজিওথেরাপি দেওয়া সম্ভব। রোগী আইসিইউতে বা লাইফ সাপোর্টে থাকা অবস্থায় দ্রুত ফিজিওথেরাপি শুরু করলে ফুসফুসের কার্যকারিতাও উন্নত হয়।

এখন জেনে নেওয়া যাক, স্ট্রোকের পর কোনো সমস্যায় ফিজিওথেরাপি নিলে দ্রুত কার্যকর ফল পাওয়া যেতে পারে। অবশ্য রোগীর ইতিহাস, শারীরিক পরীক্ষা, ল্যাব পরীক্ষার ওপর ভিত্তি করে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। স্ট্রোকের পর যেসব সমস্যা দেখা দেয় ও দীর্ঘদিন থাকতে পারে, সেগুলো হলো:

  • শরীরের এক পাশের হাত–পা নড়াচড়া করতে না পারা বা কম শক্তি পাওয়া
  • হাত দিয়ে ভালো করে কিছু ধরতে না পারা
  • হাত–পায়ের পেশির স্থিতিস্থপাকতা কমে যাওয়া
  • শরীরের ভারসাম্য নষ্ট হওয়া
  • সমন্বয়হীনতা বা কো–অর্ডিনেশনের অভাব
  • শরীরের স্বাভাবিক দেহভঙ্গি বা অ্যালাইনমেন্ট নষ্ট হওয়া
  • হাঁটাচলা করতে না পারা, শোয়া থেকে নিজে নিজে উঠে বসা বা বসে থাকার শক্তি না থাকা
  • মুখ বেঁকে যাওয়া
  • কর্মদক্ষতা কমে যাওয়া
  • শ্বাসকষ্ট, কফ বের করা বা খাবার গেলার ক্ষমতা নষ্ট হওয়া

স্ট্রোক হলে সব রোগীরই একসঙ্গে সব কটি সমস্যা হবে তা নয়। একেকজনের একেক সমস্যা হতে পারে। কারও কম দিন, কারও দীর্ঘদিন সমস্যা রয়ে যেতে পারে। একজন ফিজিওথেরাপি চিকিৎসক সমস্যার ধরন ও পর্যায় অনুযায়ী চিকিৎসা পরিকল্পনা করেন। এ ক্ষেত্রে রোগীর যদি হাত–পায়ের কোনোটায় নড়াচড়ায় সমস্যার সৃষ্টি হয়, সে অনুযায়ী চিকিৎসা দেওয়া হয়। হাতের বা পায়ের নড়াচড়া স্বাভাবিক করতে ফিজিওথেরাপির সুনির্দিষ্ট কিছু পদ্ধতি রয়েছে। একইভাবে মুখ বেঁকে গেলে কিংবা কর্মদক্ষতা কমে গেলে অথবা অন্য কোনো সমস্যায়ও সুনির্দিষ্ট পদ্ধতিতে ফিজিওথেরাপি দেওয়ার ব্যবস্থা আছে। এ কারণেই স্ট্রোকের পরপরই ফিজিওথেরাপি শুরু করা জরুরি। কারণ, ফিজিওথেরাপি যত দেরিতে শুরু হবে, রোগীর স্বাভাবিক জীবন ফিরে পাওয়ার বিষয়টি ততই দীর্ঘায়িত হতে পারে। এমনকি কোনো কোনো রোগীর ক্ষেত্রে আজীবন সমস্যা রয়ে যেতে পারে স্ট্রোকের পর ফিজিওথেরাপি না পাওয়ার কারণে। কাজেই স্ট্রোক–পরবর্তী চিকিৎসায় রোগীকে আবারও কর্মক্ষম করে তুলতে ফিজিওথেরাপির কোনো বিকল্প নেই।

লেখক: প্রেসিডেন্ট, বিপিটি ডক্টরস ফাউন্ডেশন

Please follow and like us:

Leave a Reply

Your email address will not be published.